অবশেষে ৬ দিন পরে ধলেশ^রী নদীর তীরে মোঃ দুলাল মোল্লা (৪০) এর লাশ উদ্ধার

84

কাজী বিপ্লব হাসান: মুন্সীগঞ্জ শহরের ধলেশ্বরী নদীর তীর থেকে মঙ্গলবার দুপুরে দুলাল মোল্লা (৪০) নামে এক রংমিস্ত্রির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিখোঁজের ছয়দিন পর দুপুর ১ টার দিকে শহরের মোল্লারচর এলাকার নদীর তীরের কচুরীপানার ভেতর থেকে ওই মরদেহ উদ্ধার করে। নিহত দুলাল মোল্লারচর এলাকার মৃত মাঈনউদ্দিন মোল্লার ছেলে।
মুন্সীগঞ্জ সদর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আব্দুস সালাম জানান, স্থানীয় লোকজন নদীর তীরে মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দিলে দুপুর ১ টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে মরদেহ উদ্ধার করে। ঘটনাস্থলে আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খন্দকার আশফাকুজ্জামান।
ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে।
উল্লেখ্য, গত ২৯ জানুয়ারী রাত ১০ টার দিকে চাচাত ভাই শাকিল মোল্লার মোবাইল ফোনের কল পেয়ে নিজ বাড়ি থেকে বের হন রংমিস্ত্রি দুলাল। এরপর থেকে আর বাড়ি ফিরেনি বলে পারিবারিক সূত্রে জানা যায়।
এ ঘটনায় ৩১ জানুয়ারী নিখোঁজের স্ত্রী কাকলী বেগম সদর থানায় সাধারন ডায়েরী করে।
এদিকে, নিখোঁজের পরপরই রংমিস্ত্রির চাচাত ভাই শাকিলকে পুলিশ একাধিকবার হাতের নাগালে পেয়েও আটক বা গ্রেফতার করেনি বলে অভিযোগ। এতে এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে। এলাকাবাসীর দাবী, শাকিল একজন মাদকাসক্ত। শাকিলই মোবাইল ফোনে কল করে রংমিস্ত্রি দুলালকে নিজ বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়েছিল। উদ্ধারকৃত দুলালের দুই ছেলে, এক মেয়ে ও তার স্ত্রীর হৃদয়বিদারক কান্নায় আকাশ-পাতাল কান্নায় ভার হয়ে উঠেছে।

Comments are closed.

%d bloggers like this: