আরো ৩২ টি পরিবারের মধ্যে খাবার সামগ্রী বিতরন

সাজ্জাত হোসেনঃ সারা বিশ্বেই নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ও মৃতের সংখ্যা ক্রমেই বেড়েই চলেছে। দেশেও করোনাভাইরাস সংক্রমণে প্রতিদিনই আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। গতকাল এ ভাইরাসের সংক্রমণে আরও দুজন মারা গেছেন, আক্রান্ত হয়েছেন আরও নয়জন। প্রথম রোগী শনাক্ত হওয়ার ২৮তম দিনে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭০-এ। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন আটজন।করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে অনেকেই অসহায় মানুষদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করছে। তবে সরকারি নির্দেশনা মতো সামাজিক দূরত্ব বজায় থাকছে কমই। এক্ষেত্রে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলার উত্তর কেওয়ার গ্রামের সোনালি প্রভাত কল্যান সংঘ নামের সংগঠনটি।তারা মানুষকে একত্রিত না করে রাতের অন্ধকারে দরিদ্র মানুষের দ্বারে দ্বারে নিজ হাতে খাবার সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছে। গতকাল রাতে সংগঠনটির উদ্যােগে উত্তর কেওয়ার গ্রামের প্রায় ৩২টি পরিবারকে খাবার সামগ্রী বিতরন করা হয়। এর আগে তারা একই গ্রামের ৩৫ টি পরিবারকে খাবার সামগ্রী বিতরন করেন।খাবার সামগ্রী মধ্যে ছিল ১০ কেজি চাল,১ কেজি ডাল,১লিটার সোয়াবিন তেল,১কেজি পিয়াজ,২কেজি আটা ও ১ টি সাবান।এ ব্যাপারে সংগঠনের সভাপতি জনাব ইলিয়াস খান মিন্টু বলেন, দ্বিতীয় ধা‌পে আমা‌দের গ্রা‌মের ৩২টি প‌রিবা‌রের ম‌ধ্যে খাদ্য পণ্য বিতরণ করা হ‌লো।   প্রথম ধা‌পে দি‌য়ে‌ছিলাম ৩৫ প‌রিবা‌রে। মোট ৬৭ প‌রিবা‌রের ম‌ধ্যে দেয়া হ‌লো। আবারও প্রমা‌ণিত হ‌লো এলাকার সংকটময় সম‌য়ে আমরা সবাই এক হ‌য়ে কাজ ক‌রি। এলাকার গণ্যমান্য , ছোট বড় সক‌লের সহ‌যো‌গিতায় এই  কাজ‌টি  সম্পন্ন করা সহজ হ‌য়ে‌ছে। আমা‌দের এই  কার্যক্রম চলমান থাক‌বে। তিনি আরো বলেন, এ সময় সবার উচিত সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা। তাই আমরা রাতে সংগঠনের অন্যান্য সদস্যদের সহযোগিতায় খাদ্য সামগ্রী বিতরন করেছি।  সংগঠনের সার্বিক সহযোগিতায় যারা আছেন তারা হলেন – ‌রোমান সরদার, সুজন মি‌জি, তুষার শিপু, ইম‌তিয়াজ কোরাই‌শি,দ্বীন ইসলাম নিপু, শান্ত খান, সুজন,  শাহিন,মিলন সর্দার, হাসান শাহ, হামিদা খাতুন,জনি, আলআমিন,তানজির মোল্লাসহ প্রমুখ ব্যক্তিবর্গ। এলাকাজুড়ে তাদের এ মানবতার সেবাকে বেশ প্রশংসিত হচ্ছে। এ সময় খাবার সামগ্রী পেয়ে গরীব দুঃখী মানুষেরাও খুব উপকৃত হচ্ছে।

Spread the love

Comments are closed.