ইরাক ও সিরিয়ায় বিমান হামলার সমর্থনে যুক্তি দিল হোয়াইট হাউজ

ইরাক ও সিরিয়ায় বিমান হামলার সমর্থনে যুক্তি দিল হোয়াইট হাউজ

3

ইরাক ও সিরিয়ায় ইরান সমর্থিত সশস্ত্র সংগঠনগুলোর ঘাঁটিতে যুক্তরাষ্ট্রের বিমান হামলাকে ‘প্রয়োজনীয়, যথাযথ ও স্বেচ্ছাকৃত’ বলে জানিয়েছে হোয়াইট হাউজ। সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে হোয়াইট হাউজের প্রেস সেক্রেটারি জেন সাকি এক সংবাদ সম্মেলনে এই কথা জানান।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘ইরান সমর্থিত সশস্ত্র যোদ্ধাদের অস্ত্রের গুদাম, কমান্ড, লজিস্টিক ও ড্রোন পরিচালনাসহ অন্যান্য কাজে ব্যবহৃত স্থাপনায় লক্ষ্যবস্তু নির্ধারণ করা এই হামলা চালানো হয়েছে।’

তিনি আরো বলেন, এই অঞ্চলে সংঘর্ষের ঝুঁকি কমাতেই এই হামলা চালানো হয়েছে।

জেন সাকি মার্কিন সংবিধানের আর্টিকেল দুইয়ের উদ্ধৃতি দিয়ে সংবাদ সম্মেলনে জানান, মার্কিন নাগরিকদের রক্ষায় যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীর সর্বোচ্চ অধিনায়ক হিসেবে প্রেসিডেন্ট ব্যবস্থা নিতে পারেন।

তিনি বলেন, ‘আর্টিকেল দুইয়ে আত্মরক্ষা, যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা এবং আমাদের স্বার্থের রক্ষার বিষয়ই গতকালের (রোববার) ঘোষিত হামলার জন্য আমাদের অভ্যন্তরীণ যুক্তি।’

সংবাদ সম্মেলনে জেন সাকি বলেন, প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বিশ্বাস করেন এই অঞ্চলে মার্কিন সৈন্য, সহযোগী ও মিত্রদের রক্ষায় প্রয়োজনীয় ও যথাযথ পদক্ষেপ ওয়াশিংটনের নেয়া উচিত এবং তা ভবিষ্যতেও নেবে।

এর আগে রোববার ইরাক ও সিরিয়ায় ইরান সমর্থিত সশস্ত্র সংগঠনগুলোর মোট তিনটি লক্ষ্যবস্তুতে হামলা করে যুক্তরাষ্ট্র।

ইরাক-সিরিয়া সীমান্তে এই হামলায় ইরান সমর্থিত কাতায়েব সাইয়েদুশ শুহাদার চার যোদ্ধা নিহত হয়েছে বলে জানায় সংগঠনটি।

হামলার পরিপ্রেক্ষিতে দেশের সার্বভৌমত্ব লঙ্ঘন করায় ইরাক ও সিরিয়া উভয় দেশের পক্ষ থেকেই যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি নিন্দা ও সমালোচনা জানানো হয়েছে।

এদিকে হামলার পরিপ্রেক্ষিতে প্রতিশোধ নেয়ার জন্য ইরান সমর্থিত সশস্ত্র সংগঠনগুলো প্রত্যয় প্রকাশ করেছে।

সূত্র : আনাদোলু এজেন্সি ও মিডল ইস্ট আই

Comments are closed.

%d bloggers like this: