গুজুবে বিশ্বাসী, হুজুগে বাঙালি এর ই সাথে চলছে ডক্টরদের ভিজিট বানিজ্য

44

কাজী বিপ্লব হাসান: প্রভাদে আছে, গুজুবে বিশ্বাসী, হুজুগে বাঙালি। প্রভাদটি যে অতি সত্য তা এবার প্রমাণিত হলো করোণা ভাইরাসের কারণে বাংলাদেশে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়লে একটি ফেইসবুকে প্রচার করা হয় যে, জনৈক মাওলানা সাহেব নাকি সপ্নে দেখেছেন যে, যে ব্যক্তি ফজর নামাজ শেষে বেলা উঠার আগে থানকুনি পাতা খাবে, সে করোণা ভাইরাসে আক্রান্ত হবে না। এর পরে বাজারে একটি থানকুনি পাতা ১০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হয়।
এদিকে ডক্টর দের চলছে ভিজিট বাণিজ্যের মহা উৎসব। মুন্সিগঞ্জের প্রাইভেট ক্লিনিক গুলোতে যেকোনো ধরনের রুগি দেখাতে গেলেই রুগি দেখানোর আগেই প্রথমবার ৭ থেকে ৮ শত টাকা ভিজিট দিতে হয়। যদি ভিজিট আগে না দেওয়া হয় তাহলে রুগি দেখা হয় না। পরে আবার বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষার পর আবার ডক্টর এর নিকট গেলে দ্বিতীয়বার ৫ থেকে ৬শত টাকা ভিজিট দিতে হয়। এছাড়া ডক্টরগণ রোগীর কাছ থেকে অনেক দূরে গ্লাসের অপরপ্রান্তে রোগির কথা শুনে প্রথমেই বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষা দিয়ে দেন। বাংলাদেশে কি সবাই করোণা রোগী? এ কোন দেশে বসবাস করছি আমরা? মানণীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় দৃষ্টি আকর্ষণ করছি, ডক্টরদের ভিজিটকে কমিয়ে আনার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি আমরা।

Comments are closed.

%d bloggers like this: