চলন্ত বাসে নারীকে গণধর্ষণ, আটক ৬

5

   সাভারের আশুলিয়ায় মহাসড়কে চলন্ত মিনিবাসে এক নারীকে দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় ছয়জনকে আটক করেছে পুলিশ। ভুক্তভোগীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) পাঠানো হয়েছে।

শনিবার (২৯ মে) সকালে আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (অপারেশন) আব্দুর রশিদ বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এরআগে শুক্রবার (২৮ মে) রাত পৌনে ১২টায় আশুলিয়া-সিঅ্যান্ডবি বাইপাস সড়কের আশুলিয়া গরুর হাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আটকরা হলেন, ঢাকার তুরাগ থানার গুলবাগ ইন্দ্রপুর ভাসমান গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে আরিয়ান (১৮), কুষ্টিয়ার দৌলতপুর থানার তারাগুনা এলাকার মৃত আতিয়ারের ছেলে সাজু (২০), বগুড়ার ধুনট থানার খাটিয়ামারি এলাকার সুলতান মিয়ার ছেলে সুমন (২৪), নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর থানার ধামঘর এলাকার জহুর উদ্দিনের ছেলে মনোয়ার (২৪), বগুড়ার ধুনট থানার খাটিয়ামারি এলাকার তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে সোহাগ (২৫) ও বগুড়ার ধুপচাচিয়া থানার জিয়ানগর গ্রামের সামছুলের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৪০)।

আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (অপারেশন) আব্দুর রশিদ বলেন, শুক্রবার রাতে বোনের বাড়ি মানিকগঞ্জ থেকে নিজ বাসা নারায়ণগঞ্জের চাষাড়া এলাকায় যাচ্ছিলেন ভুক্তভোগী।পরে গন্তব্যে যাওয়ার আগেই সব যাত্রীদের নামিয়ে দেন বাসের চালক-সহকারী। এরপর ভুক্তভোগীকে জোর করে বাসে নবীনগর নিয়ে যান বাসচালক, হেলপারসহ ছয়জন। এসময় তারা ভুক্তভোগীকে দলবদ্ধভাবে ধর্ষণ করেন।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় ছয়জনকে আটক করা হয়েছে। আটকরা থানা হেফাজতে রয়েছেন। ভুক্তভোগীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢামেকের ওসিসিতে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি। ঢাকার ডাক

Comments are closed.

%d bloggers like this: