চলো- পেট ভরে খাই” পাঁচ দিনের কর্মসূচি শেষ

চলো- পেট ভরে খাই" পাঁচ দিনের কর্মসূচি শেষ

9
তুষার আহাম্মেদ:চলো- পেট ভরে খাই” এ শ্লোগান সামনে রেখে জেলার সাড়ে তিনশত জন কর্মহীন, সুবিধাবঞ্চিত মানুষের জন্য ২ টাকায় দুপুরে খাবার খাওয়ানো হয়েছে। গতকাল রোববার জেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে দুই টাকায় বিরানী খাওয়ানোর মধ্যে দিয়ে পাঁচ দিনব্যাপী এ কর্মসূচি শেষ হয়।
প্রত্যেকদিন ১৫০ থেকে ৩৫০ জন পথচারী, সুবিধাবঞ্চিত মানুষ, শিশু, দিন মজুর ও ভিক্ষুক দুই টাকার বিনিময় এ খাবার খেতে পারে।
এই সংগঠনের সকলের একটা উদ্দেশ্য, সকলেই যাতে লজ্জায় না পেয়ে তাদের টাকা দিয়ে খাবার কিনে আনন্দের সাথে খাবারের খেতে পারে। অনেকেই আছে ফ্রী খাবার খেতে লজ্জায় পরে যায়। তাই এমন চিন্তা থেকেই খাবারের দাম ২ টাকা ধরা হয়েছে। এতে পথ শিশু থেকে শুরু করে সকলেই ২ টাকা দিয়ে পেট ভরে খতে পারে।
উপস্থিত ছিলেন মুন্সিগঞ্জ জেলা গার্লস গাইড কমিশনার ও কে কে সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষিকা শিউলি আক্তার, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ জেলা শাখার সভাপতি এড. নাসিমা আক্তার, উদীচীর জেলা সাধারণ সম্পাদক হামিদা খাতুন ও অ্যডভোকোট নাজমা আক্তার নীরা।
দ্য হেলমেট অল কাইন্ড অফ হিউম্যানিটি সমন্বয়ক, রুনা আক্তার ছোঁয়া, লজিস্টিক সমন্বয়ক গাজী হৃদয়, লজিস্টিক মনিটর পিংকি আক্তার চৈতী, অর্থ সমন্বয়ক সিজান আহাম্মেদ হৃদয়, সহ-অর্থ সমন্বয়ক হুমায়রা তাঞ্জুম অর্না, আইটি সমন্বয়ক রিফাত শেখ, সহ আইটি সমন্বয়ক, মো. রিয়াজ তাদের অক্লান্ত পরিশ্রমে এমন সুন্দর একটি মহৎ কাজ সমাপ্ত হল।
আমরা মূলত পরিচ্ছন্নতা, শিশুদের নিরক্ষরতা দূর ও পথ শিশুদের সহায়তা নিয়ে কাজ করতে চাই।

Comments are closed.

%d bloggers like this: