চেকপোস্টেও থামানো যাচ্ছে না দক্ষিণবঙ্গের ২১ জেলার ঘরমুখো মানুষদের

চেকপোস্টেও থামানো যাচ্ছে না দক্ষিণবঙ্গের ২১ জেলার ঘরমুখো মানুষদের

0

তুষার আহাম্মেদ- কঠোর লকডাউন ও কারফিউ জারির পরামর্শের পর থেকে কোনোভাবেই থামছে না দক্ষিণবঙ্গের ২১ জেলার ঘরমুখো মানুষের জোয়ার। এ দিকে বিআইডাব্লিউটিসি’র ঘোষণার পরেও থামছে না শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটের ফেরিতে যাত্রীবাহী গাড়ি ও যাত্রী পারাপার। পুলিশের চেকপোস্ট, ঘাট কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা আর কঠোর বিধিনিষেধসহ নানা দুর্ভোগ ডিঙিয়ে যাত্রীদের ছুটে চলেছে ঘরমুখী মানুষ। কোনো চেকপোস্টই দমিয়ে রাখতে পারছে না তাদের। এ অবস্থায় ক্লান্ত হয়ে পড়েছেন চেকপোস্টে কর্মরত পুলিশ ও প্রশাসনিক কর্মকর্তারা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ঢাকা, কেরানীগঞ্জ, ধলেশ্বরী টোল প্লাজা, হাসাড়া হাইওয়ে পুলিশ, নারায়ণগঞ্জ ও মোক্তারপুর ব্রিজের চেকপোস্ট ফাঁকি দিয়ে প্রতিদিনের মতো আজ সোমবারও মাওয়া শিমুলিয়া ঘাটে যাত্রীদের ভিড় রয়েছে।

বিআইডাব্লিউটিসি থেকে বন্ধের নির্দেশনার পরে সোমবার ভোর সাড়ে ৬টায় দেখা যায়, রো রো ফেরি ক্যামিলিয়া যাত্রীদের ভিড়। সকাল ৮টায় দেখা যায়, একটি ডাম্প ফেরি যাত্রীদের প্রচণ্ড ভিড়। মুন্সীগঞ্জের মাওয়া শিমুলিয়া ঘাট হয়ে ফেরিতে পদ্মা পার হতে দেখা যায় শতশত যাত্রী ও যাত্রীবাহী গাড়ি। এতে ফেরিতে উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি, সামাজিক দূরত্ব ও মাস্ক পরিধান।

ঘাটকর্তৃপক্ষ জানায়, আসন্ন ঈদুল আজহা ও কঠোর লকডাউনের সময় বৃদ্ধিতে ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থান থেকে যাত্রীরা ভেঙে ভেঙে ঘাটে পৌঁছাচ্ছে। এরপর নির্দেশনা উপেক্ষা করে ফেরিতে নদী পার হচ্ছেন তারা। কোনোভাবেই থামানো যাচ্ছে না তাদের।

এ বিষয়ে বিআইডাব্লিউটিসি শিমুলিয়াঘাটের ব্যবস্থাপক শফিকুল ইসলাম জানান, নৌ-রুটে বর্তমানে ১০ ফেরি চালু রয়েছে। যাত্রীবাহী গাড়ি ও যাত্রী পারাপারে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে। তবে ঢাকা থেকে সড়ক পথে পুলিশের চেকপোস্ট উপেক্ষা করে যাত্রীরা ঘাটে আসছে। তাদের ফেরিতে ওঠা থামানো যাচ্ছে না। তাই এখন যেসব যাত্রী ঘাটে আসছে তাদের স্বাস্থ্যবিধি মানার জন্য উৎসাহিত করা করা হচ্ছে। পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে শতাধিক গাড়ি।

উল্লেখ্য, শুক্রবার বিআইডব্লিউটিসির এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ৯ জুলাই থেকে ফেরিতে যাত্রীবাহী সব ধরনের গাড়ি ও যাত্রী পরিবহন বন্ধ থাকবে। এ সময় কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুধু জরুরি পণ্যবাহী গাড়ি ও অ্যাম্বুলেন্স পারাপার করতে পারবে।

Attachments area

Comments are closed.

%d bloggers like this: