টঙ্গীবাড়ীতে খাল খনন বন্ধের দাবিতে এলাকাবাসীর মানবন্ধন

টঙ্গীবাড়ীতে খাল খনন বন্ধের দাবিতে এলাকাবাসীর মানবন্ধন

10
টঙ্গীবাড়ীতে খাল খনন বন্ধের দাবিতে এলাকাবাসীর মানবন্ধন
 তুষার আহাম্মেদ-মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ীতে পদ্মার পাড়ের বেরিবাঁধ কেটে খাল খনন বন্ধ করার দাবিতে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে দুইশত পরিবার মাঠে নেমেছে। আজ রোববার সকাল ১০টায় উপজেলার পাচগাঁও এলাকার  পদ্মার পাড়ের বেরিবাঁধের পাকা সড়কে শত শত নারী পুরুষ জমায়েত হয়ে পাচগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান মিলেনুর রহমানের বিরুদ্ধে এই প্রতিবাদ মিছিল করে।
সরেজমিনে জানা গেছে, সরকারি অর্থে উপজেলার পদ্মার পাড়ে কুকরাদি মৌজা থেকে পাচগাঁও ইউপি চেয়ারম্যানের বাড়ি পর্যন্ত এক কিলোমিটার খাল খনন করার উদ্যোগ গ্রহণ করেন মিলেনুর রহমান।
এতে পদ্মা ভাঙ্গনরোধে নির্মিত যান চলাচলের সড়ক ও বেরিবাঁধ কাটা পড়বে।
এলাকাবাসী জানিয়েছে, খালটি খনন হলে পদ্মা নদীর স্রোতের পানি বর্ষা মৌসুমে নদী সংলগ্ন গ্রামে প্রবেশ করে কয়েক’শ বাড়ি ঘর ভাঙ্গবে। ভিটে মাটি ছাড়া হবে নদী ভাঙ্গন কবলিত শত শত পরিবার। পাচগাঁও ওয়াহেদ আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রতন শেখ বলেন বর্ষা মৌসুমে নদী শাসনের সময় অপরিকল্পিতভাবে বেকু দিয়ে খাল খনন করলে স্থানীয় বাসিন্দারা ক্ষতিগ্রস্থ হবে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি জানান, এর আগেও মিলন চেয়ারম্যান ও তার ভাই সওদাগর হালদার একই স্থানে খাল খনন করতে চেয়েছিলেন।  ওই সময় তাদের কে ৬০ হাজার টাকা দিলে তারা কাজ বন্ধ রাখেন।
এ বিষয়ে পাচগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান মিলেনুর রহমান জানান, ইউনিয়ন পরিষদে বরাদ্দকৃত অর্থে খাল খনন করার প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। কিন্তু গ্রামবাসী খনন কাজে বাঁধা দিতে আন্দোলনে নেমেছে।

Comments are closed.

%d bloggers like this: