“পিঠা উৎসব ও বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান-২০২০” অনুষ্ঠিত হয় মুন্সিগঞ্জ কলেজে

142

কাজী বিপ্লব হাসান: আজ ১২-০২-২০২০ ইং রোজ বুধবার মুন্সিগঞ্জ কলেজে “পিঠা উৎসব ও বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান” অনুষ্ঠিত হয়। মুন্সীগঞ্জ কলেজের উদ্যোগে “পিঠা উৎসব ও বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান” মুন্সিগঞ্জ কলেজের মাঠ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়।

মুন্সিগঞ্জ কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) জনাব মোঃ সামিউল মাসুদ এর সভাপতিত্বে মুন্সিগঞ্জ কলেজের এই পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। মুন্সিগঞ্জ কলেজের আয়োজিত এই পিঠা উৎসবে প্রধান অতিথির আসন গ্রহণ করেন মাননীয় জেলা প্রশাসক ও সভাপতি নির্বাহী কমিটি, অত্র কলেজের জনাব মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদার। বিশেষ অতিথির আসন গ্রহন করেন সরকারি হরগঙ্গা কলেজের অধ্যক্ষ, প্রফেসর আব্দুল হাই তালুকদার, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব মোঃ আনিসউজ্জামান আনিস, ক্রাউন্ট সিমেন্ট এর সভাপতি জনাব আলহাজ¦ এম.এ রউফ, মুন্সিগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি মীর নাসির উদ্দীন উজ্জল, মুন্সিগঞ্জ কলেজ এর সকর শিক্ষকবৃন্দ ও শিক্ষার্থীবৃন্দ এবং আরও বিশেষ ব্যক্তিবর্গ এই পিঠা উৎসবে উপস্থিত ছিলেন।

পিঠা-পুলি বাঙালির অতি পরিচিত খাবার। তাইতো পাটি সাপটা, রস কদম, দুধ পুলি, ভাপা, পাকানপিঠা সহ নানান প্রকারের পিঠার নাম শুনলে জিহ্বায় জল চলে আসবে যে কারো। কিন্তু আধুনিকায়নের নামে ফাস্টফুডের আগ্রাসনে নিজস্ব সেই খাদ্য ও সংস্কৃতি আজ বিলুপ্তির পথে। নিজস্ব এই ঐতিহ্যের সঙ্গে সঙ্গে নতুন প্রজন্মের পরিচয় করিয়ে দিতে প্রতিবছরের মতো এবারও মুন্সিগঞ্জ কলেজের আয়োজনে দিনব্যাপী পিঠা উৎসবের আয়োজন করা হয়।

মুন্সিগঞ্জ কলেজের এই পিঠা উৎসবে একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের সমš^য়ে ৬টি স্টলের গঠন করা হয়। ‘পিঠা উৎসবে ভাপা, কলা পিঠা, পাতা পিঠা, ঝিনুক পিঠা, তুলি পিঠা, মিষ্টি ঝিনুক পিঠা, জাল ঝিনুক পিঠা, কামরাঙ্গা পিঠা, ফুল পিঠা, নকশি পিঠা, হৃদয় হরণ পিঠা, পাকন পিঠা, দুধ পাবান, তেজপাতা, ঝিনুক, গুড় সন্দেষ, গোরাপ, চমচম পিঠা, নকশি পিঠা, ডিম চিতই পিঠা, বিস্কেটর পিঠা, পানতোয়া পিঠা, রাজডোল্লা পিঠা, বধুবরণ পিঠা, ইলিশ পিঠা, সিদ্ধ পুলি পিঠা, দুধ পুলি পিটা, পুলি পিঠা, তিল চিতই পিঠা, দুধি চতই পিটা, চিতই পিটা, জরদা পিটা, পয়সা পিঠা, কাপ পিটা, সন্দেশ পিঠা, পেয়ারা সন্দেশ, ভর্তা পিঠা, চিলত, ছিটা, ঝুনি, সাকুর, মালপুয়া, পাটি সাপটা, রস কদম, পিংগার, পানপুয়া, টিকেট, চকলেট, গোলাপ, পাটি সাফটা, গাজরের পিঠা, আলুর স্টিক পিঠা, ঝাল টিঠা, জামাই পিঠা, চিতল পিঠা, শিমের ফুল পিঠা, নারকেল পিঠা, লাভপিঠা, ছিটা পিঠা ডোনাটা, ভাজা পুলি, হাজের পিঠাসহ শতাধিক পিঠা প্রদর্শন করে।

এই পিঠা উৎসবে প্রথম স্থান গ্রহণ করেন মাধবীলতা স্টল, দ্বিতীয় স্থান গ্রহণ করেণ করেন অপরাজিতা এবং তৃতীয় স্থান গ্রহণ করেন রজনীগন্ধা এবং ফুটবল খেলায় প্রথম স্থান গ্রহণ করেন দ্বাদশ শ্রেণীর মানবিক বিভাগ। সকলকে পুরষ্কার বিতরনের পর বিভিন্ন সাংস্কৃতিক নাচের মাধ্যমে এই অনুষ্ঠানটি শেষ করা হয়।

Comments are closed.

%d bloggers like this: