পৌর মেয়র হাজী মোঃ ফয়সাল বিপ্লব একটি সুন্দর জিনিস উপহার দিয়েছেন মেয়েদেরকে যার নাম “অঙ্গনা” নারীদের সেবার জন্য আধুনিকতা ও ধর্মীয় পরিপূর্ণ

কাজী বিপ্লব হাসান : মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার নারীদের সেবার জন্য সম্মানজনক উদ্যোগ “অঙ্গনা” যা অনন্য বিরল দৃষ্টান্ত। সমাজে চলার পথে নারীদের অযু, নামাজ পড়া, পোশাক পাল্টানো সহ অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো তারা করতে পারবে। শৌচাগারও রয়েছে এখানে।

মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র হাজী মো: ফরসাল বিপ্লবের উদ্যোগ ও দিক নির্দেশনায় আধুনিকতা ও ধর্মীয় আবহে পরিপূর্ণ “অঙ্গনা” এখন নান্দনিকতায় পরিপূর্ণতা লাভ করেছে। শহরের জেলা স্টেডিয়াম সংলগ্ন সড়কে পুলিশ সুপারের বাসভবনের পাশে নির্মিত এই স্থাপনা হাজী ফয়সাল বিপ্লবের অক্লান্ত পরিশ্রমের ফসল। নারীদের সেবার জন্য সম্মান জনক এই উদ্যোগ আধুনিকতা ও ধর্মীয় আবহে পরিপূর্ণ। বিগত ২০১৯ সালের ৫ই মে মুন্সীগঞ্জের প্রাক্তন জেলা প্রশাসক সায়লা ফারজানা ও পৌর মেয়র হাজী ফয়সাল বিপ্লবের যৌথ উদ্যোগ এবং মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার নিজস্ব অর্থায়নে শহর ও শহরাঞ্চলের নারীসমাজের দীর্ঘদিনের চাওয়া এই “অঙ্গনা” (লেডিস টয়লেট)। আজ হতে অঙ্গনাকে মহিলাদের জন্য খুলেদেওয়া হয়েছে। এর আনুষ্ঠানিক উদবোধন করেন মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র হাজী মো: ফয়সাল বিপ্লব। তিনি বলেন, শুধুমাত্র নারী সমাজের কথা বিবেচনা করে মুন্সীগঞ্জে এই প্রথমবারের মতো ও আধুনিক মানে “অঙ্গনা” কে রূপ দেওয়া হয়েছে। এই অঙ্গনায় আছে নারীদের জন্য অযুখানা ও নামাজের স্থান, পোশাক পরিবর্তনের কক্ষ, সাজসজ্জা কক্ষ ও শৌচাগার। আধুনিকতার ছোয়া ও ধর্মীয় আবহে নির্মিত হয়েছে এই “অঙ্গনা”।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.