প্রতিবন্ধি নাজমা চিকিৎসা খরচের আকুল আবেদন

5
প্রতিবন্ধি নাজমা চিকিৎসা খরচের আকুল আবেদন
তুষার আহাম্মেদ: শারীরিক প্রতিবন্ধি নাজমা আক্তার (৩৯)। তার বাম পায়ের হাটু থেকে চার রগ ছিড়ে গেছে পরে গিয়ে। এমনই তিনি শারীরিক প্রতিবন্ধি। ডান পা প্যারালাইসেস কারণে লাঠি দিয়ে বা পায়ে ভর দিয়ে চলাফেরা করতেন তিনি। চিকিৎসা ব্যয় মিটাতে তার সহায়তা প্রয়োজন। চিকিৎসা জানিয়েছেন তার পায়ের অপারেশন করাতে ৩ লাখ টাকা লাগবে। তার প্রতিবন্ধি আইডি নং – 19825954708284-02, ফোন নাম্বার -01924464475
নাজমা আক্তার মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার রামপাল ইউনিয়নের দক্ষিণ কাজী কসবা গ্রামের বাসিন্দা।তার পিতার নাম মো.আলী মিয়া বেপারী, মাতার নাম মনোয়ারা বেগম।তিনি ২৮ শে ডিসেম্বর ১৯৮২ সালে জন্মগ্রহণ করেছেন।   তিনি বিবাহিত,গত ৯ বছর আগে তার বিবাহ হয়। তার স্বামীর নাম আলীম সরকার। তাদের ঘরে কোন সন্তান নেই। বাবার বাড়িতে বসবাস করছেন। তার স্বামী সদর উপজেলার পঞ্চসারে দৈনিক ৩০০ টাকা মজুরিরে আলুর কলেস্টোরেজে দিনমজুরের কাজ করেন।  
নাজমা বলেন, আমার পাঁচ বছর বয়সে জ্বর হয়। জ্বরে আমার ডান পা টি প্যারালাইসেস হয়ে যায়।সে দক্ষিণ কাজী কসবা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও রামপাল উচ্চ বিদ্যালয়ে এক পা অচল থাকা অবস্থায় লাঠি ভর দিয়ে লেখাপড়া করেছে। এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছিলেন পাস করতে পারেননি। অসচ্ছলতা কারণে আর লেখাপড়া করা হয়নি। লাঠি ও বাম পায়ে ভরে চলাফেরা করতাম। আমি সেলাই কাজ করি, এখন করতে পারছি না । আমি আপনাদের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সহায়তা চাই। আমি আগের মতো চলতে চাই।
আরও বলেন, আমি পঙ্গু হাসপাতালে প্রফেসর ডা: ফরিদ উদ্দিনের চিকিৎসায় আছি। আমার চিকিৎসা জন্য পয়োজন ৩ লাখ টাকা। তা আমার দিনমজুর স্বামী জোগাড় করা সম্ভব না। আমি সকলের সহযোগিতা চাই।

Comments are closed.

%d bloggers like this: