বাল্য বিয়ের বলি ঋতু বেগম । স্বামী জেল হাজতে

মুন্সীগঞ্জ ভয়েজ: মুন্সীগঞ্জে বাল্য বিয়ের বলি হলেন ঋতু বেগম। মুন্সীগঞ্জ সদর থানার পানহাটা ফকির বাড়ীতে শিপন ফকিরের স্ত্রী ঋতু বেগম (২২) আত্মহত্যার করেছে। এই হত্যাকান্ডের অভিযোগে স্বামী শিপন ফকির (৩৮) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সেই সূত্র ধরে বৃহস্পতিবার অর্থাৎ বুধবার গভীর রাতে চেয়ার দিয়ে তার স্বামী পিটিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে হত্যা করছে এমন অভিযোগও করছে এলাকাবাসী। পুলিশ ঘটনাস্থলে যাওয়ার পূর্বেই লাশ নামিয়ে ফেলেছে স্বামী ও তার স্বজনরা।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, দীর্ঘদিন স্বামীর সাথে স্ত্রীর বনিবনা হচ্ছিল না। এক পর্যায় দুইজন দুইজনের বিছানাও পৃথক করে ঘরে ঘুমায়। অপরদিকে এক পক্ষ জানিয়েছে মেয়ে তার মোবাইল বেশীরভাগ সময় কার সাথে যেন কথা বলতো সারাক্ষণ। পরকীয়া বা সাবেক প্রেমিকের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরিকীয়া নিয়াও স্বামী স্ত্রীর মাঝে ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকতো।
বিনোদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও উচ্চ বিদ্যালয় থেকে অস্টম শ্রেণিতে পড়া অবস্থায় রিপুর বিবাহ হয়। বিবাহের পরে তাদের ঘরে একটি ছেলে সন্তান জন্ম নেয়। যার বয়স ৪ বছর। ছেলেটি কথা বলতে পারে না। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একজন শিক্ষক বলেন মেয়েটি শারিরীকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় ১৩ বছর বয়সেই বিবাহ দেয় অভিভাবক।
এ বিষয়ে সদর থানা অফিসার ইনচার্জ আলমগীর হোসাইন জানান, আত্মহত্যার প্রেরচনার অভিযোগে (৩০৬) দন্ড বিধি রুজু করে স্বামী শিপন ফকির গ্রেফতার করে কোর্টে চালান করা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ময়না তদন্ত শেষে মেয়ের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
 
সূত্র: উম্মে কুলসুম নিশি (এমসিটিভি):

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.