বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে শাহবাগে প্রতীকী শান্তি শোভাযাত্রা

11

ঢাকার ডাক ডেস্ক  :     বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে গৌতম বুদ্ধের অহিংস বাণী ‘পৃথিবীর সকল প্রাণী সুখী হোক’ স্লোগান নিয়ে আজ সকালে প্রতীকী শোভাযাত্রা করেছে বাংলাদেশ বৌদ্ধ সাংস্কৃতিক পরিষদ।

বুধবার (২৬ মে) সকালে রাজধানীর শাহবাগের জাতীয় জাদুঘরের সামনে থেকে এই প্রতীকী শোভাযাত্রা শুরু হয়। ব্যানার নিয়ে কিছু সামনে অতিক্রম করার পর শোভাযাত্রার সমাপ্তি হয়।

বেলুন উড়িয়ে শোভাযাত্রার উদ্বোধন করেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী হাসান মাহমুদ । এ সময় উপস্থিত ছিলেন বৌদ্ধ সাংস্কৃতিক পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক ডা. উত্তম কুমার বড়ুয়া, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, বাংলাদেশ খ্রিস্টান অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি নির্মল রোজারিও, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের মহাসচিব শ্রী নির্মল কুমার চ্যাটার্জি প্রমুখ।

এই অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন বৌদ্ধ সাংস্কৃতিক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রসেনজিৎ বড়ুয়া।

উদ্বোধনের আগে প্রধান অতিথির বক্তব্যে হাসান মাহমুদ বলেন, মানুষের মাঝে সাম্য, সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠা করা সব ধর্মের মর্মবাণী। বৌদ্ধ ধর্ম আরও একধাপ এগিয়ে সমস্ত জীবের কল্যাণের কথা বলেছেন। আমরা যদি সবাই ধর্মের মর্মবাণী বুকে ধারণ করে সেটি অনুসরণ করি তাহলে পৃথিবীতে হানাহানি কখনো থাকতো না। তাই আমি সবাইকে অনুরোধ জানাবো, আমরা যেন নিজ নিজ ধর্মের মর্মবাণীকে বুকে ধারণ করে সেটি অনুসরণ করি এবং সবার মাঝে সম্প্রীতি সাম্য প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করি।

মন্ত্রী বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠায় অনেকগুলো যুগান্তকারী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। মাঝেমধ্যে যে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি মাথাচাড়া দিয়ে উঠে সেটি সবসময় আমাদের সরকার কঠোর হস্তে দমন করেছে। ভবিষ্যতে কেউ যদি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার অপচেষ্টা চালায় তাদেরকে কঠোর হস্তে দমন করা হবে।

হাসান মাহমুদ আরও বলেন, ‘আজকের এই দিনে আমরা সবাই প্রার্থনা করবো আসন্ন ঘূর্ণিঝড় যেন আমাদের আঘাত না হানে। একই সাথে করোনা মহামারির থেকে সবাই যেন মুক্তি পায় সেই প্রার্থনাও আমরা করবো।’

Comments are closed.

%d bloggers like this: