মঙ্গলের পাতলা স্তরের কার্বন ডাই অক্সাইড পূর্ণ বায়ুমন্ডল থেকে প্রথমবার শ্বাস নিতে পারার মতো অক্সিজেন তৈরি

মঙ্গলের পাতলা স্তরের কার্বন ডাই অক্সাইড পূর্ণ বায়ুমন্ডল থেকে প্রথমবার শ্বাস নিতে পারার মতো অক্সিজেন তৈরি করেছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার রোভার পারসিভিয়ারেন্স। গত শুক্রবার মঙ্গলে প্রথম ছোট্ট হেলিকপ্টার ‘ইনজেনুয়িটি’ওড়ানোর পর এবার পারসিভিয়ারেন্স মিশনে প্রযুক্তির আরেক সাফল্য এলো।

বিবিসির তথ্যমতে, এই রোভারে আছে ‘মার্স অক্সিজেন ইন-সিটু রিসোর্স ইউটিলাইজেশন এক্সপেরিমেন্ট’বা মোক্সি। যা দিয়ে তৈরি করা হয়েছে অক্সিজেন।

গত ১৮ ফেব্রুয়ারিতে ছয় চাকার রোভার মঙ্গলে নামার পর ২০ এপ্রিল অর্থাৎ, মঙ্গলের দিনের হিসাবে ৬০ তম মার্সিয়ান ডে-তেই অক্সিজেন ছেঁকে বের করার পরীক্ষা করে ফেলেছে।

প্রাথমিক পর্যায়ে ৫ গ্রাম অক্সিজেন তৈরি হয়েছে। একজন নভোচারীর মঙ্গলে ১০ মিনিট শ্বাস নিতে এই পরিমাণ অক্সিজেন দরকার হয়। মোক্সির সাহায্যে ঘন্টায় ১০ গ্রাম অক্সিজেনও তৈরি করা যেতে পারে।

ভবিষ্যতে মঙ্গলে মানুষ পাঠানোর মিশনে অক্সিজেন তৈরির আরও উচ্চ-ক্ষমতাসম্পন্ন মোক্সি পাঠানোর চিন্তা করছে নাসা। এর ফলে নভোচারীদের চাহিদা মেটাতে পৃথিবী থেকে আর বিপুল পরিমাণ অক্সিজেন সেখানে বয়ে নিয়ে যেতে হবে না।

মঙ্গলের বাতাস ছেঁকেই তৈরি হবে ফুরফুরে অক্সিজেন। এতে শ্বাসবায়ু তো বটেই, রকেটের জ্বালানি নিয়েও আর মাথা ঘামাতে হবে না। মঙ্গলে তৈরি অক্সিজেন দিয়েই রকেটের জ্বালানি তৈরি করা যাবে। আর তেমন হলে মঙ্গল থেকে পৃথিবীতে যাতায়াতও সহজ হয়ে যাবে। ইভূ

প্রকাশিত: এপ্রিল ২৩, ২০২১ , ১১:১৭ পূর্বাহ্ণ আপডেট: এপ্রিল ২৩, ২০২১ , ১১:১৭ পূর্বাহ্ণBhorer Kagoj

%d bloggers like this: