মহিলা কাউন্সিলর কে মারধরে মেয়র ছেলের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

42
মেয়রের ছেলে কর্তৃক মহিলা কাউন্সিলকে মারধরে সংবাদ সম্মেলন
তুষার আহাম্মেদ- মুন্সিগঞ্জের মিরকাদিমে মেয়র ছেলে কর্তৃক সংরক্ষিত ১নং ওয়ার্ড মহিলা কাউন্সিলর হাসিনা পারভীনকে মারধরের ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন করেছে। রবিবার দুপুর দিকে মুন্সিগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সফিউদ্দিন আহম্মেদ মিলনায়তনে এই সংবাদ সম্মেলন করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে কাউন্সিলর হাসিনা পারভিন বলেন, গত ৭ জুন রাত ৮ টার দিকে পৌরসভার উত্তর রামগোপালপুর এলাকায় ছেলে ও মেয়ের সালিশে সুমন হাজির বাসায় যাই। এই সালিশে আমি ছেলের পক্ষ নিয়ে ন্যায্য কথা বললে মেয়ের পক্ষে রন্টি উত্তেজিত হয়ে আমাকে অকথ্য ভাষায় গালা-গালি করে। পরে সালিশ থেকে চলে আসলে সিঁড়ির মধ্যে রন্টি পিছন থেকে ও মেয়র পুত্র মানিক সামনে থেকে আমাকে উপরে মারধর করে পরনের বোরকা ছিড়ে ফেলে। তখন আমার দুই ছেলে ও স্বামী রক্ষা করতে গেলে রন্টি ও মানিকের পক্ষের লিটন (২৬), মাঈনউদ্দিন (৩৬), নিভির (২৩), রিংকু, মেয়র বড় ছেলে পাপ্পু একত্রিত হয়ে তাদেরকে মারধর করে। এসময় মাঈনউদ্দিন আমার গলার ১২ আনা স্বর্ণের চেইন নিয়ে যায়। পরে আমাদের চিৎকারে রামগোপালপুর সমাজের সভাপতি মো. নাজির উদ্দিন আমাদের রক্ষা করে। পরে তারা এই ব্যাপারে মামলা করলে হত্যার হুমকি দেয়।
এই সংবাদ সম্মেলনে রুজিনা ইয়াসমিন, সেলিনা ইসলামসহ তার কয়েকজন প্রতিবেশী উপস্থিতি ছিলেন।
মহিলা কাউন্সিলরকে মারধরের ঘটনায় মিরকাদিম পৌরসভার মেয়রের বড় ছেলে পাপ্পু বলেন, মহিলা কাউন্সিলর ছোট ছেলে রাজু আহম্মেদ সালিশের মধ্যে আমার ছোট ভাই মানিকের কলার ধরে। এর ভিডিও ফুটেজ আছে

Comments are closed.

%d bloggers like this: