মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন

12

তুষার আহাম্মেদ- মুন্সিগঞ্জ গজারিয়ায় কাজের দায়িত্ব পালন নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ছোট ভাইয়ের আঘাতে বড় ভাই খুন হয়েছে। উপজেলা গুয়াগাছিয়া ইউনিয়নের ছোট বসুরচর গ্রামে মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) গভীর রাতে সাবেক খলিল মেম্বারের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মাসুম (৪০) দুই সন্তানের জনক।হত্যাকারী ছোট ভাই রিয়াদ (৩২) । নিহত মাসুমের বাবা খলিল মেম্বার জানান , আমার ডেজাল ও স-মিলের ব্যবসা রয়েছে।

বড় ছেলে মাসুম ডেজার দেখাশোনা করতো আর ছোট ছেলে রিয়াদ স-মিল দেখাশোনা করতো।

মঙ্গলবার রাতে ছোট ছেলে রিয়াদ বড় ছেলেকে ডেজারের দায়িত্ব ছেড়ে স-মেইলে গিয়ে কাজ করার কথা বলায়, দুই ভাইয়ের মধ্যে হাতাহাতির এক পর্যায়ে রিয়াদের লাঠির আঘাতে মাসুম মারা যায়।

স্থানীয় ৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল বাতেন জানান, কাজের দায়িত্ব নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে তর্ক বিতর্কের একপর্যায়ে ছোট ভাই রিয়াদের লাঠির আঘাতে মাসুম নিহত হয়েছে।

স্থানীয় ৬ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোহন জানান, খলিল মেম্বারের একটি স-মেইল দুইটি বল্বগেইট ডেজার আছে। খলিল মেম্বার নিজেই সংসার ও ব্যবসা পরিচালনা করেন। কোন ছেলে কোন কাজের দায়িত্ব পালন করবে তা নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ছোট ভাই রিয়াদের আঘাতে বড় ভাই মাসুম নিহত হয়েছে।

নিহত মাসুমের শশুর দ্বীন ইসলাম জানান,মেয়ে কাকলির জামাই মাসুম খুনের সংবাদ পেয়ে বুধবার সকালে ছোট-বসুরচর গ্রামে মেয়ের বাড়িতে আসি। মেয়ে কাকুলি ঘটনার পর থানা পুলিশ হেফাজতে আছে। নিহত মাসুমের ২ টি মেয়ে সন্তান আছে। নিহত মাসুমের বিত্তশালী আত্মীয়-স্বজনসহ গ্রাম্য মাতব্বর টাকার বিনিময় আপস করার চেষ্টা তদবির চালাচ্ছেন।

গজারিয়া থানা এস আই মাইনুল জানান, সংসারের দায়িত্ব পালন নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ছোট ভাইয়ের লাঠির আঘাতে বড় ভাই নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। আহত ব্যক্তিকে হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এই বিষয়ে একাধিক ব্যক্তি জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানা হেফাজতে আনা হয়েছে। মামলার প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

এ ব্যাপারে গজারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ রহিজ উদ্দিন দুপুর ১টার দিকে বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। নিহতের স্ত্রী কাকলি বেগম বাদী হয়ে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে। মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এ ঘটনায় এখনো কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

Comments are closed.

%d bloggers like this: