মুন্সীগঞ্জে অটোরিকশা চালককে পিটিয়ে হত্যা, পদ্মাসেতুর ১০ জন নিরাপত্তা কর্মী আটক

মুন্সীগঞ্জে অটোরিকশা চালককে পিটিয়ে হত্যা, পদ্মাসেতুর ১০ জন নিরাপত্তা কর্মী আটক

5

তুষার আহাম্মেদ- মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলায় মো. জুলহাস হাওলাদার (৩৫) নামের এক অটোরিকশা চালককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। আজ শুক্রবার সকালে উপজেলার পদ্মা সেতু সংলগ্ন মাওয়া চার রাস্তা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বিকাল৩ টা পর্যন্ত এ ঘটনায় জড়িত থাকায় ১০ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

মৃত জুলহাস হাওলাদার উপজেলার কুমারভোগ পুর্নবাসনের মৃত হাসান হাওলাদারের ছেলে। সে পেশায় একজন ব্যাটারি চালিত রিকশা চালক।

আটক ব্যাক্তিরা হলেন,মো.সেলিম, মো.রাব্বি, তপু মিয়া, আল-আমিন হোসেন, আরিফ হোসেন, আব্দুল মান্নান, ইসরাফিলসহ ১০ জন।

স্থানীয়রা জানান,সকাল সাড়ে ৬টার দিকে জুলহাসকে পদ্মা সেতুর কাজে নিয়োজিত নিরাপত্তাকর্মীরা চুরির অভিযোগে রড দিয়ে বেদম পেটায় এতে গুরুত্বর আহত হয় জুলহাস। পরে জুলহাসের স্বজনদের খবর দেওয়া হলে তাকে শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

লৌহজং থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলমগীর হোসাইন বলেন, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১০ জনকে আটক করা হয়েছে। এরা সবাই পদ্মাসেতুর নিরাপত্তাকর্মী।
আটক ব্যাক্তিদের জিঙ্গাসা করা হলে,তারা জানায় জুলহাসকে চোর সন্দেহে তারা পেটান। তবে নিহতের স্বজনরা দাবি করছে,পূর্ব শত্রুতার জের ধরে জুলহাসকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ড. রেজাউল হক জানান, সকাল ৯ টার দিকে ওই ব্যক্তিকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। পরবর্তীতে পুলিশকে ঘটনাটি জানানো হলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার( লৌহজং-শ্রীনগর সার্কেল) মো. আসাদুজ্জামান বলেন, ঘটনার সাথে জড়িত এমন ১০ জনকে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ তারা হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত বলে স্বীকার করেছেন।

Comments are closed.

%d bloggers like this: