মুন্সীগঞ্জে অবাধে চলছে ঝাটকা নিধন দেখার যেন কেউ নেই

47

কাজী বিপ্লব হাসান : মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার চরকেওয়ার ইউপির চরঝাপ্টায় পদ্মা নদীতে অবাধে চলছে ঝাটকা নিধন।

সারা দেশ ব্যপি ঝাটকা মাছ ধরা, পরিবহন, বিক্রয় ও ক্রয় নিষিদ্ধ হলেও মুন্সীগঞ্জ সদরের চরঝাপ্টায় পদ্মা নদীতে অবাধে চলছে ঝাটকা মাছ ধরা হচ্ছে এবং জেলেদের কাছ থেকে কিনে এনে মুন্সীগঞ্জ সদরের উত্তর ইসলাম পুর, দক্ষিন ইসলামপুর ও বিশেষ করে মোল্লার চরের নদীর পাড়ে তা অবাধে বিক্রি হচ্ছে এবং ক্রেতারা তা ২ থেকে ৩ শত টাকা কেজী দরে কিনে নিয়ে যাচ্ছে। ক্রেতাদেরকে ঝাটকা মাছ কিনতে কেউ নিষেধ করলে অথবা বাধা প্রদান করলে ক্রেতারা তার উপর ক্ষুব্ধ হচ্ছে এবং তার সাথে অসৌজন্য মূলক আচরণ করছে। কিন্তু স্থানীয় প্রশাসন ও মৎস বিভাগের কোন মাথাব্যথা নেই। বিষয়টি দেখে মনে হয় এব্যপারে তাদের কোন দায়িত্ব নেই।
একটি বিষয় উল্লেখ্য যে, ঝাটকা মাছ ধরা পরিবহন বিক্রয়সহ কেনা ও আইনত দন্ডনিয়। কিন্তু একশ্রেনীর ক্রেতা কমদামে মাছ খাওয়ার লোভ সামলাতে নাপারায় বিক্রতারাও ঝাটকা মাছ অবাধে বিক্রিকরে চলছে। প্রতিদিন অতীভোরে চরঝাপ্টা থেকে বিক্রেতারা এ ঝাটকা মাছ এনে তা ইসলাম পুর ও মোল্লার চরের নদীর পাড়ে এনে বিক্রি করছে। কিন্তু মৎস্য বিভাগ অথবা আইনশৃক্সখলা রক্ষা বাহিনীর নজরে আছে কিনা জানা নেই।
এ বিষয়ে জেলা মৎস কর্মকর্তা সুনিল মন্ডল জানান, বিষয়টি আমাদের নলেজে আছে। প্রতিদিন আমরা অভিযান চালাচ্ছি, তবে প্রান ঘাতী করোনা ভাইরাসের প্রভাবে পুলিশ প্রশাসন ওদিকে একটু ব্যস্ত থাকায় অভিযানের কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে।

Comments are closed.

%d bloggers like this: