মুন্সীগঞ্জে অস্ত্র তৈরির কারখানা থেকে বিপুল পরিমান অস্ত্র উদ্ধার

 
স্টাফ রিপোর্টার: মুন্সীগঞ্জে সদর উপজেলায় অস্ত্র তৈরির কারখানা থেকে বিপুল পরিমান অস্ত্র ও অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। সোমবার গভীররাতে অভিযান চালিয়ে চরকেওয়ার (গজারিয়া কান্দি) থেকে এসব উদ্ধার করা হয়। দুপুর ২ টার দিকে জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের কনফারেন্স রুমে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানায়।
অস্ত্র তৈরির কারখানার মূল হোতা মিজানুর রহমান(৩৮) চরকেওয়ার(গজারিয়া কান্দি) গ্রামের খোরশেদ দিদারের ছেলে এবং তার নিজ বাড়ি থেকে এসব উদ্ধার করে গোয়েন্দা পুলিশ।
উদ্ধারকৃত অস্ত্র ও সরঞ্জামাদি গুলো মধ্যে একটি দেশীয় তৈরি স্নাইপার রাইফেল, দুইটি দেশীয় তৈরি ওয়ান শুট্যার গান, এক রাউন্ড রাইফেলের গুলি, নয় রাউন্ড পিস্তলের গুলি, চার রাউন্ড শর্ট গানের গুলি, পিস্তলের দুইটি গুলির খোসা, স্নাইপার রাইফেলের দুইটি পাইপ, একটি ছোরা ও চাপাতি, একটি দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র তৈরির ড্রিল মেশিন, দুইটি পিস্তল সাদৃশ্য স্টীলের পাত, ৬টি আগ্নেয়াস্ত্র তৈরির স্প্রিং এবং লাগেজে ভর্তি আগ্নেয়াস্ত্র তৈরির বিভিন্ন সরঞ্জামাদি।
সংবাদ সম্মেলনে সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার(সদর সার্কেল) মোঃ আসাদুজ্জামান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অস্ত্র তৈরির কারখানায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আসামী মিজানুর রহমান পালিয়ে যায়। তার বিরুদ্ধে সদর থানায় একাধিক মামলা রয়েছে এবং পলাতক মিজানুর রহমানসহ সহযোগীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালিয়ে যাওয়া হচ্ছে এবং মামলা প্রক্রিয়াধীন অবস্থায় আছে বলে জানান তিনি।
জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইউনুচ আলীর নেতৃত্বে এই অভিযান পরিচালিত হয়। অস্ত্র অভিযানে ছিলেন পুলিশ পরিদর্শক মোঃ মফিজুর রহমান, পুলিশ পরিদর্শক সেলিম রেজা, এসআই রাকিবুল হাসান, এসআই মোর্শেদ আহম্মেদ, এস আই ফরহাদ হোসাইন, এসআই আব্দুস সালাম প্রমুখ।
 

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.