মুন্সীগঞ্জ জেলায় হোম কোয়ারেন্টিনে ৪২৮ প্রবাসী, ছাড়পত্র পেয়েছে ৩২। ১০দিন মার্কেট বন্ধ।

39

কাজী বিপ্লব হাসান : মুন্সীগঞ্জ জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে নতুন করে ৫৮ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত জেলা জুড়ে হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন প্রবাসীসহ ৪২৮ জন। পাশাপাশি ১৫ দিনের হোম কোয়রেন্টিনের মেয়াদ শেষে শরীরে করোনার কোনো লক্ষণ না থাকায় ইতোমধ্যেই ৩২ জনকে মৌখিকভাবে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে জেলা সিভিল সার্জন অফিস থেকে এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়। এর আগে সোমবার পর্যন্ত জেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকা রোগীর সংখ্যা ছিল ৪২৭ জন। আজ মঙ্গলবার একজন বেরে ৪২৮ জন হয়েছে। তাদের প্রত্যেককে ১৪ দিন পর্যন্ত নিজি নিজ বাড়িতে অবস্থান করার নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য। বিভাগ। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ৬০ জন, টংগিবাড়ী উপজেলায় ১৩১ জন, গজারীয়া উপজেলায় ৩৫ জন, সিরাজদিখান উপজেলায় ১২৬ জন, শ্রীনগর উপজেলায় ৪০ জন এবং লৌহজং উপজেলায় ৩৬ জন হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন। পাশাপাশি জেলা স্বাস্থ্য কম্যকর্তারা নিয়মিত তাদের পর্যবেক্ষণের দায়িত্বে রয়েছেন। সিভিল সার্জন ডা. আবুল কালাম আজাদ জানান, করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় জেলায় ১৪ সদস্য বিশিষ্ট একটি মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে। ইতোমধ্যেই মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা (আরএমও) ভার প্রাপ্ত ডা. মৃদুল কুমার দাস এবং সিভিল সার্জন কার্যলয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. আতিকুর রহমান প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ নিয়েছেন। প্রয়োজন অনুসারে তাদের মাধ্যমে নার্স ও অন্য চিকিৎসকদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। এছাড়া জেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের নিয়ে করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় গ্রাম পর্যায়ে কমিটিও গঠন করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।
এ বিষয়ে জেলা সিভিল সার্জন আবুল কালাম আজাদ বলেন, করোনা ভাইরাসকে নিয়ে আমরা সার্বক্ষনিক মেডিকেল টিম কাজ করে যাচ্ছে।
এদিকে, মুন্সীগঞ্জ জেলা সহরের ব্যবসায়ী সমিতি গত কাল থেকে পুর্ব নির্ধারিত মাইকিং করে বৃহস্পতিবার ২৬ তারিখ থেকে এপ্রিল এর ০৪ তারিখ থেকে টানা ১০দিন সহরের মার্কেট, দোকান পাট ও বিপনিবিতান সহ সবরকম দেকানপাট ও যান বাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে।
এ ব্যপারে জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদার বলেন, সেনাবাহীনি গতকালই মুন্সীগঞ্জে এসেছেন, তাদের নিয়ে আজকে থেকে আমরা কাজ শুরু করব এবং তাদের ক্যাম্প হবে প্রেসিডেন্ট প্রফেসর ড. ইয়াজুদ্দিন আহামেদ রেসিডেন্সিয়াল স্কুল এন্ড কলেজে।

Comments are closed.

%d bloggers like this: