রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান দুর্বল হলে রাষ্ট্র ভালো থাকে না : ঢাবি ভিসি

রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান দুর্বল হলে রাষ্ট্র ভালো থাকে না : ঢাবি ভিসি

4

রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠানগুলো দুর্বল হলে রাষ্ট্র ভালো থাকে না বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান। সোমবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) কালো দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

এ সময় ঢাবি ভিসি বলেন, রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান তথা রাজনীতিবিদদের দুর্বলতার সুযোগেই প্রশাসনিক শক্তি মাথা চাড়া দিয়ে উঠে। ফলে সমাজে অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটে। প্রশাসনিক শক্তির একটা নির্দিষ্ট সীমা থাকা দরকার।

ড. মো. আখতারুজ্জামানের মতে রাজনীতিবিদদের গন্ডি অনেক সম্প্রসারিত। সমাজ ও রাষ্ট্রের স্বার্থেই রাজনৈতিক ধারা বা দর্শন সমাজে বিকশিত হতে পারে তার পরিবেশ তৈরি করা উচিত। সুতরাং রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠানগুলোর গুরুত্ব, মর্যাদা অক্ষুণ্ন রাখতে হবে।

রাজনীতিকে দুর্বত্তায়ন করা অপ্রত্যাশিত বলে মন্তব্য করেন ঢাবি ভিসি।

তিনি বলেন, প্রত্যেকের কাজে পেশাদারিত্বের ছাপ থাকলে সমাজে ভারসাম্য আসবে। দূর হবে বিশৃঙ্খলা। সমাজ, রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যে অপশক্তিই ষড়যন্ত্র করুক না কেন, গণমানুষ একত্রিত হলে কোনো অপশক্তির স্থায়ীত্বই বেশিদিন টিকে থাকে না বলেও মনে করেন ড. মো. আখতারুজ্জামান।

এদিকে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) কর্তৃপক্ষ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মরণে ‘বঙ্গবন্ধু স্বর্ণপদক’ চালু করেছে। এই স্বর্ণপদকটি শিক্ষা, সংস্কৃতি, বিজ্ঞান ও সাহিত্যে বিশেষ অবদানের জন্য প্রদান করা হবে।

রোববার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রিসার্চ ইনস্টিটিউট ফর পিস অ্যান্ড লিবার্টির বোর্ড অব গভর্নেসের প্রথম সভায় এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান সভায় সভাপতিত্ব করেন।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ২০২২ সাল থেকে এই পদক প্রদান শুরু হবে। আর প্রতিবছর ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকীতে আনুষ্ঠানিকভাবে এই পদক প্রদান করা হবে। শুধুমাত্র বাংলাদেশের নাগরিকরা ‘বঙ্গবন্ধু স্বর্ণপদক’-এর জন্য মনোনীত হবেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রিসার্চ ইনস্টিটিউট ফর পিস অ্যান্ড লিবার্টি এই স্বর্ণপদক প্রদান করবে। নয়া দিগন্ত অনলাইন

Comments are closed.

%d bloggers like this: