শ্রীনগরের রাস্তার গাছে জাতীয় ফল কাঠাল

12
তুষার আহাম্মেদ: শ্রীনগরে জাতীয় ফল কাঁঠালের চাহিদা তেমন নেই বললেই চলে। মাদারীপুর, শরিয়তপুর, গোপালগঞ্জ, ফরিদপুর, পিরোজপুর, ভোলা, পটুয়াখালী ও বরিশাল জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে পাইকাররা আসায় বেশ কিছু কাঁঠাল বিক্রি হয় নগদ মূল্যে। কিন্তু এলাকার মানুষের কাছে জাতীয় ফলটির কদর খুব কম। ভরা মৌষুমে কাঁচা বা পাকা যাই হোক-সেগুলা গরু-ছাগলের খাদ্য হিসেবে বেশি ব্যবহার হয়ে থাকে।
আর শ্রীনগরের রাস্তার গাছে জাতীয় ফল কাঁঠাল বাগান বৃদ্ধি পাচ্ছে। এলাকাবাসীর অভিযোগ উপজেলা কৃষি
স্মপ্রসারণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা কোনো খবর নেন না। উপজেলার সর্বাধিক কাঁঠাল উৎপাদন এলাকা বলে খ্যাত আটপাড়া শিমুলতলা, বাড়ৈখালী, বাঘড়া ও উপজেলা ঘুড়ে দেখা যায়। জাতীয় ফসল হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়া ফলটির কদর এতই কম যে, তারা কাঁচা কাঁঠাল গবাদিপশুর খাদ্য হিসেবে বেশি ব্যবহার করেন। পাকা কাঁঠালের রোয়া বা কোয়ার চেয়ে কাঁচা কাঁঠালের ইচোড় বা পাকা কাঁঠালের বিচিই গৃহবধূদের কাছে বেশি পছন্দের তরকারি হিসেবে খাওয়ার জন্য। সুমন জানায়, বাপ-দাদারা রাস্তায় গাছ লাগিয়েছিল-কৃষি কর্মকর্তা সহ যোগিতা পেলে আম, লিচু, পেয়ারা ইত্যাদি ফলদ গাছের চারা লাগানো যেতে পারে।

Comments are closed.

%d bloggers like this: