শ্রীনগরে নাম পরিবর্তন করে হাসপাতাল দখল চেষ্টার অভিযোগ

শ্রীনগরে নাম পরিবর্তন করে হাসপাতাল দখল চেষ্টার অভিযোগ

8
তুষার আহাম্মেদ- মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে আধুনিক হাসপাতালের নাম পরিবর্তন করে হাসপাতালটি দখল চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে হাসপাতালের ৩জন রক্ষণাবেক্ষনে থাকা দায়িত্ব প্রাপ্তের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় হাসপাতালের ৩ জনের বিরুদ্ধে শ্রীনগর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন হাসপাতাটির মালিক হারুন বেপারী।
জানাযায়, গত কয়েক বৎসর পূর্বে উপজেলার ডাকবাংলো সংলগ্ন স্থানে প্রতিষ্ঠিত হয় শ্রীনগর আধুনিক হাসপাতালটি। প্রতিষ্ঠার পর সুনামের সাথে এই উপজেলায় তাদের ব্যবসা পরিচালানা করে আসলেও আধুনিক প্রপ্রাষ্টিজ দেওলিয়া হয়ে যায়। আধুনিক হাসপাতালের সাবেক চেয়ারম্যান এম এস আব্দুস সালাম প্রতিষ্ঠানটি পরিচালনা করতে ব্যর্থ হয়। পরে ২০১৪ সালের প্রতিষ্ঠানটির বিয়োগকারী মোঃ হারুন বেপারীসহ ৬জন অংশীদরকে ৩ কোটি টাকা মূল্য নির্ধারণে হাসপাতালের সকল মালামালসহ হস্তান্তর করেন। পরবতর্ীতে আরো শতাধিক বিনিয়োগকারী এসে বর্তমান মালিকদের নিকট তাদের বিনিয়োগের টাকা ফেরত চাইলে তৎকালীন এমপি সুকুমার রঞ্জন ঘোষ উভয় পক্ষকে ডেকে একটি সমাধনে বসে। সেখানে সিদ্ধান্ত মতে হাসপাতাটি পরিচালনার মাধ্যমে আয় করে ৪ বছরের মধ্যে বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগ ফেরত দেয়ার শর্তে বেজগাঁও গ্রামের ফিরোজ আল-মামুন, শ্যামসিদ্দি গ্রামে ফারুক হোসেন ও হরপাড়া গ্রামের ডিএমদেরকে হাসপাতাল পরিচালনা কারার দায়িত্ব দেন। দায়িত্বের ৪ বছর পেরিয়ে গেলে অংশীদারদের টাকা ফেরত না দিয়ে আধুনিক হাসপাতালের নাম পরি বর্তন করে তারা। বর্তমান নাম দেয় শ্রীনগর মর্ডান হাসপাতাল। এতে মুল মালিক হারুন বেপারীসহ ৬ জন অংশীদার তাদের মালিকানা চাইতে গেলে ফিরোজ আল-মামুনসহ তার সহযোগীরা বর্তমান মালিকদের ভয়ভীতিসহ হুমকি প্রদান করে।
ভুক্তভোগী হারুন বেপারী জানায়, এমপি সাহেবের নিদের্শে ফিরোজ আল-মামুুন গংদের ৪ বছরের জন্য আধুনিক হাসপাতালটি পরিচালনার দায়িত্ব দেয়া হয়। কিন্তু এই ৪ বছরে তারা হাসপাতালটি থেকে আয় করে কোন অর্থই বিনিয়োগকারীদের ফেরত দেই নাই এবং উল্টো আধুনিক হাসপাতালের নাম পরিবর্তন করে মর্ডান হাসপাতাল নাম দিয়ে দখল  করেছে।
এব্যাপারে অভিযুক্ত শ্রীনগর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি  ফিরোজ আল-মামুন বলেন, হাসপাতালে মালিক ১০২ জন তারাই হাসপাতালে নাম পরিবর্তন করেছে। আমি হাসপাতালটি ভায়া নিয়ে চালাই।
শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ হেদায়াতুল ইসলাম ভূঞা বলেন, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Comments are closed.

%d bloggers like this: