সিরাজদিখানে দুপক্ষের সংঘর্ষে ১০ জন আহত

13

তুষার ও সালমান:মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ব্যাপক সংঘর্ষ, ভাঙচুর,ঘরবাড়িতে অগ্নিসংযোগ ও লুটপাট হয়েছে। বালুচর ইউনিয়নের চর পানিয়া নামাপাড়া এলাকায় গত কাল বুধবার সন্ধ্যা ৬ টার দিকে এসব ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ১০ জন আহত হয়েছে। এ সময় বালুচর ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নং ইউপি সদস্য ফারুক গ্রুরুপের ৬ জন গুরুতর আহত মোহাম্মদ নূরে আলম, মোঃ সুজ্জামাল, মোঃ পেয়ার আলী, মোঃ বারেক কে ঢাকা মিটফোর্ড হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। অন্যরা স্থানীয় বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্লিনিকে চিকিৎসা নিয়েছেন। আহতদের কারো হাতের আঙ্গুল চলে গেছে। আবার কারো মাথায় গুরুতর যখম হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, আধিপত্য বিস্তার কেন্দ্র করে পূর্ব শত্রুতার জেরে নবধারা হাউজিংয়ের চেয়ারম্যান শাহজাহানের লোকজন ও সরকার সিটির চেয়ারম্যান খোরশেদ ও ইউপি সদস্য ফারুক মেম্বারের লোকজদের মধ্যে গতকাল   বুধবার দুপুর ১ টা থেকেই দফায় দফায় মারামারি ও সংঘর্ষ হয়।

সে সময় উভয় পক্ষের লোকজন আহত হয়। দুপুরের ঘটনার জেরে সন্ধ্যা ৬ টায় নবধারা হাউজিং প্রকল্পের চেয়ারম্যান শাহজাহান গ্রুপের লোক, মোঃ শিরী মিয়া, জামাল, ফারুক মিয়া ও বাচ্চু মিয়া সহ শাহজানের দলবল লাঠিসোঁটা দেশীয় আস্ত্র ও হাতে বোতল ভর্তি পেট্রোল নিয়ে স্থানীয় ৩ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য ফারুক মেম্বারের লোক আব্দুল বারেক ও তাদের আত্মীয়র বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করে পাকা টিনের চৌচালা ঘর পুড়িয়ে ফেলে এবং একাধিক বাড়িঘর ভাংচুর করে ও লুটপাট চালায়।

সিরাজদিখান থানার ওসি (তদন্ত) মো. কামরুজ্জামান জানান,ওইসব এলাকা থেকে একাধিক নারী পুরুষ ইতোমধ্যে আটক হয়েছে। তবে তারা বুধবারের ঘটনার আসামী না। আর বুধবারের আগ্নিসংযকের ঘটনায় এখনো মামলা হয়নি। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Comments are closed.

%d bloggers like this: