সিরাজদিখানে ব্যস্ততম সড়কের উপর অবৈধ ড্রেজারের পাইপ স্থাপন, ভোগান্তি

সিরাজদিখানে ব্যস্ততম সড়কের উপর অবৈধ ড্রেজারের পাইপ স্থাপন, ভোগান্তি

1
তুষার আহাম্মেদ: মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার জৈনসার  ইউনিয়নের ব্যস্ততম সড়ক সমূহের উপর দিয়ে অবৈধ ভাবে ড্রেজারের পাইপ লাইন স্থাপন করা হয়েছে। এতে করে  ঝুঁকি নিয়ে চলাচলসহ ভোগান্তিতে পড়েছেন ওই এলাকার পথযাত্রী ও বিভিন্ন যানবাহনের চালকরা। এছাড়া অবৈধ ভাবে সড়কের উপর দিয়ে ড্রেজারের পাইপ লাইন স্থাপনের কারণে ব্যস্ততম সড়ক সমূহে প্রতিনিয়তই ঘটছে ছোট বড় দূর্ঘটনা। সরেজমিনে দেখা যায়, জৈনসার ইউনিয়নের  কুসুমপুর-নওপাড়া সড়কের উপর পোস্ট খিলগাঁও স্টান্ড, পোস্ট খিলগাঁও মোড় ও জৈনসার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম দুদু’র বাড়ীর সামনের রাস্তার উপর দিয়ে অবৈধভাবে ড্রেজারের পাইপ লাইন টানা হয়েছে।সড়কের উপর দিয়ে টানা ড্রেজিংয়ে পাইপ সমূহ দিয়ে ওই এলাকার বাড়ী ও ফসলি জমির ভরাটের কাজ চলছে। সড়কের উপর প্রায় এক থেকে দেড়  ফুট উচু করে ইটের শুড়কি দিয়ে পাইপ সমূহ ঢেকে রাখার কারণে যাত্রী ও যানবাহন চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয়েছে। সিরাজদিখান উপজেলা থেকে লৌহজং উপজেলায় প্রবেশের এ সড়কটি দিয়ে প্রতিদিন হাজারো মানুষের যাতায়াত রয়েছ। এছাড়া ব্যস্ততম এ সড়কটি দিয়ে অটো, মিশুক, সিএনজি,মালবাহী ট্রাক নিয়মিত যাতাযাত করে। সড়কটির বেশ কয়েকটি স্থানে অবৈধ ভাবে টানা হয়ে ড্রেজিংয়ের পাইপ লাইন। জানা যায়, রাস্তার উপর ওই পাইপ সমূহ অবৈধ ভাবে বসিয়ে বালুর ব্যবসা করছেন  জৈনসার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম দুুুদু। এছাড়া ইউনিয়নের বিভিন্ন সড়কের উপর দিয়ে ড্রেজারের পাইপ লাইন স্থাপন করে নীয়ম নীতির কোন প্রকার তোয়াক্কা না করে অবৈধভাবে বালুর ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম দুদু। স্থানীয় ইজিবাইক চালকরা জানান, রাস্তার উপর দিয়ে পাইপ লাইন টানার কারনে তাদের চলাচলে অনেক কষ্ট হয়। বিশেষ করে বৃষ্টির দিনে ও রাতের বেলাতে অনেকটাই বেকায়দায় পরেন তারা । অনেক সময় দ্রুত গাড়ি চালাতে গেলে তাদের দূর্ঘটনার শিকার হতে হচ্ছে বলেও জানান তারা।  এছাড়া সন্ধ্যার পর রাস্তায় বাতি না থাকায় রাস্তার উপর পাইপ স্থাপনের কারণে যাতায়াত ভোগান্তির সম্মূক্ষিন হচ্ছেন ওই এলাকার বেশ কয়েকজন ইজিবাইক চালক। কুসুমপুর চৌরাস্তা থেকে নওপাড়া বাজারে যেতে ৪-৫ জায়গায় ড্রেজাবের পাইপ লাইন অতিক্রম করতে হয় তাদের। ব্যস্ততম সড়ক থেকে অবৈধ ড্রেজিংয়ের পাইপলাইন উচ্ছেদে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামণা করেছেন তারা। এ ব্যপারে জৈনসার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম দুদু বলেন, কবরস্থানে বালু ফেলছি। অবৈধ ভাবে সড়কের উপর দিয়ে পাইপ নেওয়ার বিষয়ে তার কাছে জানতে চাও হলে তিনি কোন সদুত্তর দিতে পারেন নি।
উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি সুবীর কুমার দাস জানান, তদন্তকরে  ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Comments are closed.

%d bloggers like this: