‘হাম রুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইন’ সাংবাদিকদের নিয়ে কনফারেন্স

45

কাজী বিপ্লব হাসান: “ মুজিব বর্ষে ¯স্বাস্থ্য খাত, এগিয়ে যাবে অনেক ধাপ”- এই প্রতিপাদ্যকে সামনে নিয়ে সারাদেশে আগামী ১৮ই মার্চ থেকে ১১ই এপ্রিল পর্যন্ত সারাদেশে হাম রুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইন পালিত হবে। এই টিকাদান ক্যাম্পেইনের অংশ হিসেবে আজ ১৫ই মাচ জেলা সিভিল সার্জন অফিসের ৩য় তলা কনফারেন্স রুমে সাংবাদিকদের নিয়ে একটি কনফারেন্স সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভায় জেলা সিভিল সার্জন ডা: আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার ৪০ জন সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন। সভায় হাম-রুবেলা বিষয়ক ফিচার পাঠ করেন জেলা সার্ভিলেন্স ইমোনাইজেশন অফিসার ডা: সাবেনুল ইসলাম। উক্ত সভায় হাম-রুবেলা টিকাদানের জন্য সাংবাদিকদের কি কি করণীয় আছে এই বিষয়ে আলোচনা করা হয়। ২০২৩ সালের মধ্যে এই রোগ নির্মুল করার জন্য সরকার থেকে চেষ্টা করে যাচ্ছে। এই ব্যাপারে সাংবাদিকদেরও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে সভায় বলা হয়। সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি ও দৈনিক সভ্যতার আলোর সম্পাদক মীর নাছির উদ্দিন উজ্জল, প্রবীন সাংবাদিক শেখ আলী আকবর ও মাহবুব আলম লিটন বক্তব্য রাখেন। ১৮-২৫ই মার্চ স্কুলগামী ছেলে-মেয়েদের এবং ২৮মার্চ-১১ই এপ্রিল পর্যন্ত ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে ৯ মাস থেকে ১০ বছরের কম বয়সী সকল শিশুদের হাম-রুবেলা টিকাদান করা হবে।
হাম ও রুবেলা ভাইরাস জনিত দুটি মারাত্মক সংক্রামক রোগ। হাঁচি ও কাশির মাধ্যমে দ্রুত এই রোগ বায়ু দ্বারা ছড়াতে পারে। শিশুদের মধ্যেই এই রোগের প্রকোপ, জটিলতা ও মৃত্যু বেশি দেখা যায়। হামের জটিলতার মধ্যে নিউমোনিয়া , ডাইরিয়া, অপুষ্টি, এনকেফালাইটিস, অন্ধত্ব ও বধিরতা অন্যতম। সভায় এই দুটি রোগের কারণ ও জটিলতা সম্পর্কে আলোচনা করা হয়। মুন্সীগঞ্জ জেলার ৬টি উপজেলাতে ৩,৬৯,১০৫জন শিশুকে এই টিকা দেয়া হবে। ৬টি স্থায়ী, ১৬০৬টি অস্থায়ী কেন্দ্র এবং ৯০টি অতিরিক্ত কেন্দ্র থেকে ১৬৫জন ¯স্বাস্থ্য সহকারী (এইচএ) ও ৫১০৬জন ¯স্বেচ্ছাসেবক এই টিকাদান করবেন।

Comments are closed.

%d bloggers like this: