৫ লক্ষ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় প্রাইভেট কাড় সহ ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ

৫ লক্ষ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় প্রাইভেট কাড় সহ ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ

13
তুষার আহাম্মেদ – মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া উপজেলায় বৈশাখী স্টোরের মালিক বিশিষ্ট ব্যবসায়ী কে কুপিয়ে সাথে থাকা ৫ লক্ষ  টাকার ব্যাগ নিয়ে যাওয়ার অভিযোগের ঘটনায় ব্যবহৃত একটি প্রাইভেট কাড় একটি ধারালো ছুরি সহ ৩ জন ছিনতাইকারী কে আটক করেছে গজারিয়া থানা পুলিশ।
গত বুধবার দিবাগত রাত আনুমানিক  ১০টার সময় ভবেরচর বাস ¯ট্যান্ড হতে  ব্যবসায়ীর নিজ বাড়ি পুরান বাউশিয়া  গ্রামে যাওয়ার পথে, আব্দুল্লাহপুর রাস্তা অতিক্রম করে টাওয়ার ফ্যাক্টরি সংলগ্ন এলাকায় ছিনতাইকারীর কবলে পড়েন ভবেরচর বাস স্টান্ড সংলগ্ন চৌধুরী মার্কেটের বৈশাখীর স্টোরের মালিক ব্যবসায়ী রুহুল আমিন।
ছিনতাইকারী আটককৃত তিনজন হলেন, কুমিল্লা জেলার, হোমনা থানার, আসাদপুর গ্রামের আবুল হোসেন এর ছেলে মোঃ সুজন (২০), মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া থানার চর-চাষী গ্রামের মোঃ পারভেজ মিয়ার ছেলে মোঃ শান্ত মিয়া (২১), গজারিয়া উপজেলার লক্ষীপুর গ্রামের মোঃ মনির হোসেন এর ছেলে মোঃ শুভ।
এবিষয়ে গজারিয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মো. রইছ উদ্দিন স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীদের জানায়, গত বুধবার দিবাগত রাতে ছিনতাই এর বিষয়টি আমরা অবগত হওয়ার সাথে সাথেই দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছেয় আমাদের টহলরত পুলিশ টিম। এবং সংবাদ পেয়ে অফিসার ইঞ্চার্জ জনাব মোঃ রইছ উদ্দিনের নেতৃত্বে সঙ্গীয় পুলিশ পরিদর্শক মোঃ মোকতার হোসেন সহ অন্যান্য অফিসার ফোর্স ও স্থানীয় জনগণের সহায়তায় দৌড়াইয়া একটি প্রাইভেট কাড়, একটি ছুরি সহ তিন জন ছিনতাইকারী কে আটক করা হয়। অপর একজন আসামী টাকার ব্যাগসহ পালিয়ে যায়। তিনজন আসামীর দেহ তল্লাশী করে ছিনতাই কাজে ব্যবহৃত ১টি ধারালো ছুরি উদ্ধার করা হয়।
তিনি আরো বলেন, অপর আসামি ঢাকার কোন এক এলাকায় অবস্থান করছে, তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে তাকে আটক করা প্রক্রিয়া চলছে আমাদের। তিন জন আসামির বিরুদ্ধে গজারিয়া থানা সহ আশেপাশের থানাগুলোতে একাধিক ছিনতাই ও ডাকাতি মামলা রয়েছে। তাদের কাজ হচ্ছে ছিনতাই করা তারা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন অঞ্চলে ছিনতাই ও ডাকাতি করে থাকে এটাই তাদের মূল পেশা। ছিনতাই কাজে ব্যবহৃত একটি প্রাইভেটকার ও ছুরি গজারিয়া থানা পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে।

Comments are closed.

%d bloggers like this: