ঈদের পর ১৪ দিন কঠোর লকডাউন : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

ঈদের পর ১৪ দিন কঠোর লকডাউন : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

18

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন জানিয়েছেন, ঈদুল আজহার ছুটির পর ২৩ জুলাই থেকে ১৪ দিনের জন্য করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সারাদেশে কঠোর লকডাউন চালু করা হবে। শনিবার বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)-৬ এর ‘৯৬তম ব্যাচের সমাপনী অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণ শেষে সাংবাদিকদের এই কথা বলেন তিনি।

প্রতিমন্ত্রী জানান, ১৪ দিনের এই লকডাউনে সরকারি, বেসরকারি অফিসসহ গার্মেন্টস ও অন্য সব ধরনের শিল্পপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে।

করোনাভাইরাসন সংক্রমণের ঊর্ধগতির মধ্যেই বৃহস্পতিবার থেকে লকডাউন শিথিল করে সরকার। পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপনের লক্ষ্যে নয় দিনের জন্য লকডাউন শিথিল করা হয়।

মঙ্গলবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ প্রজ্ঞাপন জারি করে জানায়, ১৪ জুলাই দিবাগত রাত ১২টা থেকে ২৩ জুলাই সকাল ৬টা পর্যন্ত সব বিধিনিষেধ শিথিল করা হল।

পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপন, জনসাধারণের যাতায়াত, ঈদ পূর্ববর্তী ব্যবসা-বাণিজ্য পরিচালনা, দেশের আর্থ-সামাজিক অবস্থা এবং অর্থনৈতিক কার্যক্রম স্বাভাবিক রাখার স্বার্থে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়।

তবে এই সময়েও করোনাভাইরাস সংক্রমণ থেকে সতর্কতায় মাস্ক পরাসহ সব স্বাস্থবিধি ‘কঠোরভাবে’ অনুসরণের নির্দেশ দেয়া হয় প্রজ্ঞাপনে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ উদ্বেগজনক হারে বেড়ে যাওয়ায় গত ১ জুলাই সকাল ৬টা থেকে দেশজুড়ে লকডাউন শুরু হয়। প্রথমে ৭ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত এর মেয়াদ থাকলেও পরে ১৪ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত আরো সাতদিনের জন্য লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানো হয়। জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন জানিয়েছেন, ঈদুল আজহার ছুটির পর ২৩ জুলাই থেকে ১৪ দিনের জন্য করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সারাদেশে কঠোর লকডাউন চালু করা হবে। শনিবার বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)-৬ এর ‘৯৬তম ব্যাচের সমাপনী অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণ শেষে সাংবাদিকদের এই কথা বলেন তিনি।নায় দিগন্ত

Comments are closed.

%d bloggers like this: