ধলশ্বেরী গ্রাসের মুখে

স্টাফ রিপোর্টার: মুন্সীগঞ্জ শহরের উপকন্ঠ পরিশ্চম মুক্তারপুর এলাকায় একদিকে দেওয়ান কোল্ড স্টোরেজের স্বত্তাধিকারী প্রয়াত আবুল হাশেম দেওয়ানের ১৪০ কোটি টাকার সম্পত্তিতে আদালতের নিদের্শ অমান্য করে ফ্যাক্টরী নির্মাণ কাজ করে চলেছৈ শাহ্ সিমেন্ট। আপরদিকে, ধলেশ্বরী নদীর পাড়ে বালূ ভরাট করে সীমানা বাড়িয়ে যাচ্ছে সিমেন্ট ফ্যাক্টরীটি।

 

এতে করে তাদের করাল গ্রাসের মুখে পড়েছে ধলেশ্বরী নদী। ভবন নির্মাণের পাশাপাশি দিন দিন ধলেশ্বরী তীরবর্তী জয়গা দখল করে নিচ্ছে সিমেন্ট ফ্যাক্টরী কর্তৃপক্ষ। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় ধলেশ্বরী নদীর তীরের জায়গা বেহাত হতে চলেছে। শাহ সিমেন্ট কর্তৃপক্ষ এমন থাবা মেলে ধরেছে যে, নদীর তীরের জায়গা বালূ ভরাটের মধ্যে দিয়ে দখল করে নিচ্ছে। আর সংকীর্ণ হতে চলেছে ধলেশ্বরী নদীর তীল। এ অবস্থায় পরিবেশবাদীরা শাহ সিমেন্ট আগ্রাসন থেকে ধলেশ্বরী বাঁচানোর দাবী তুলেছেন। তাদের দাবী-শাহ সিমেন্ট ফ্যাক্টরী দিন দিন ধলেশ্বরী নদী গ্রাস করে চলেছে। যত দিন যাচ্ছে, ততই সিমেন্ট ফ্যাক্টরী কর্তৃপক্ষ নদী দখলে মরিয়া হয়ে উঠেছে। কাজেই এখনই তাদের রুখে দাঁড়াতে হবে। বাঁচাতে ধলেশ্বরী নদী।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.