19

 রয়টার্স : যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ১ দশমিক ৯ ট্রিলিয়ন ডলারের কোভিড-১৯ ত্রাণ বিলে চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদ।

করোনা ভাইরাস মহামারীতে বিপাকে পড়া নাগরিকদের সহায়তা করতে প্রেসিডেন্ট বাইডেন বিপুল অঙ্কের এ ত্রাণ পরিকল্পনা নিয়েছেন। এর নাম ‘আমেরিকান রেসকিউ প্ল্যান’ রেখেছেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে এটি অন্যতম বড় অর্থনৈতিক উদ্দীপনামূলক পদক্ষেপ। গত বুধবার ডেমোক্র্যাট নিয়ন্ত্রিত প্রতিনিধি পরিষদে পার্টি লাইন ভোটাভুটিতে বিলটি ২২০-২১১ ভোটে অনুমোদিত হয়, কোনো রিপাবলিকান প্রতিনিধি এর পক্ষে ভোট দেননি; জানিয়েছে বার্তা সংস্থা। পাঁচ লাখ ২৮ হাজারেরও বেশি মার্কিন নাগরিকের মৃত্যু ও লাখ লাখ নাগরিককে বেকার করে দেওয়া মহামারী মোকাবেলায় এই বিলটিকে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ বলে বর্ণনা করেছেন প্রতিনিধি পরিষদের ডেমোক্র্যাট সদস্যরা। ভোটের পর এক টুইটে বাইডেন লিখেছেন, “সহায়তা এখানে।”

এ বিল চূড়ান্ত অনুমোদন পাওয়ায় দায়িত্ব নেয়ার পর প্রথম বড় জয় পেলেন ডেমোক্র্যাট এ প্রেসিডেন্ট। তিনি শুক্রবার বিলটিতে সই করার পরিকল্পনা করেছেন বলে হোয়াইট হাউস জানিয়েছে। প্রতিনিধি পরিষদের সংশোধিত এই চূড়ান্ত বিলে বহু আমেরিকানকে এককালীন এক হাজার ৪০০ ডলার করে দেওয়ার জন্য মোট ৪০০ বিলিয়ন ডলার বরাদ্দ রাখা হয়েছে। এতে মহামারির সময়ে চাকরি হারিয়ে বেকার হয়ে পড়া ৯৫ লাখ লোককে ৩০০ ডলার করে বেকার ভাতা দেওয়ারও ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

মহামারির কারণে রাজ্য ও স্থানীয় সরকারগুলোর বাজেটে যে ঘাটতি তৈরি হয়েছে তা পূরণে এ বিলে প্রায় ৩৫০ বিলিয়ন ডলার ত্রাণ বরাদ্দও রাখা হয়েছে।

করোনাভাইরাস মহামারিতে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যায় বিশ্বে শীর্ষে আছে যুক্তরাষ্ট্র। রয়টার্সের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, এখন দেশটিতে মোট করোনাভাইরাস রোগীর সংখ্যা প্রায় দুই কোটি ৯২ লাখ এক হাজার ৩৫৩ জন এবং এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে পাঁচ লাখ ২৮ হাজার ১৯০ জনের।

Comments are closed.

%d bloggers like this: