44

ডেস্ক: রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ঘাট দিয়ে লকডাউনের প্রথম রাতে জরুরি সেবার অ্যাম্বুলেন্স, পচনশীল ও কাঁচামালবাহী ট্রাকসহ ১২২৯ ট্রাক নদী পার হয়েছে।
মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ৯টায় দৌলতদিয়া ঘাট বিআইডব্লিউটিসি এ তথ্য জানায়।

জানা যায়, লকডাউনে জরুরি সেবার ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ও পণ্যবাহী ট্রাক চলাচলের অনুমতি দেয়া হয়। এছাড়া যাত্রীবাহী পরিবহন, ট্রেন ও দোকান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়।
সেই ধারাবাহিকতায় সারাদিন দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে জরুরি সেবার অ্যাম্বুলেন্স ও লাশবাহী গাড়ি পারাপারে দু’টি ছোট ফেরি সচল রাখা হয়েছে। এছাড়া পচনশীল ও কাঁচামালবাহী ট্রাক পারাপার করতে রাত ২টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত সচল রাখা হয়েছে ফেরি।

এদিকে মঙ্গলবার সকাল থেকে দৌলতদিয়ার গোয়ালন্দ মোড়ের সড়কে পণ্যবাহী ট্রাকের দীর্ঘ সিরিয়াল রয়েছে বলে জানা গেছে। এছাড়া এসময় বিচ্ছিন্নভাবে ব্যক্তিগত কয়েকটি গাড়ি ও পায়ে হাটা যাত্রীদের ফেরিঘাটে দেখা গেছে।

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া ঘাট ব্যবস্থাপক ফিরোজ খান বলেন, দৌলতদিয়া ঘাট দিয়ে রাত ২টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত প্রায় ১২শর বেশি পণ্যবাহী ট্রাক পার হয়েছে। এছাড়া অ্যাম্বুলেন্স ও লাশবাহী গাড়ি পারাপারে সার্বক্ষণিক দুইটি ফেরি সচল রয়েছে। কোনো যাত্রীবাহী যানবাহন পারাপার করছে না।

তবে নদী পারের অপেক্ষায় পণ্যবাহী ট্রাকের সিরিয়াল রয়েছে বলে জানান তিনি।

Comments are closed.

%d bloggers like this: